অননুমোদিত আবাসন প্রকল্পের ২২টি বিলবোর্ড অপসারণ

মোহাম্মদ তাজউদ্দিন24/06/2011161 রেটিং:

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) গতকাল রাজধানীর বনানী থেকে শুরু করে বিমানবন্দর এলাকায় অননুমোদিত আবাসন প্রকল্পের বিলবোর্ড অপসারণ করে। রাজউকের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের অধীনে দিনব্যাপী এ অভিযানে পাঁচটি আবাসন প্রকল্পের ২২টি বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়। আবাসন প্রকল্পসংশ্লিষ্ট হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়নের প্রাথমিক কাজ হিসেবে এ উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে রাজউক। রাজউক মঙ্গলবার থেকে এ অভিযান শুরু করে।

Image

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, সকালে নগরের বনানী এলাকা থেকে বিলবোর্ড-সাইনবোর্ডগুলো অপসারণের কাজ শুরু হয়। বনানীতে ওমেগা রিয়েল স্টেটের বিলবোর্ড অপসারণের মধ্য দিয়ে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়। দিনব্যাপী অভিযানে ওমেগা রিয়েল স্টেট, জেনোভ্যালি পিংক সিটি, ফোর সিজনস হোল্ডিংস, গ্রীন কনসেপ্ট হাউজিং ও বেস্টওয়ে গ্রুপের ২২টি বিলবোর্ড অপসারণ করা হয়। বনানী, নেভি হেডকোয়ার্টারের বিপরীতে, জিয়া কলোনির সামনে, খিলক্ষেতের কুড়াতলী এলাকা থেকে এসব বিলবোর্ড সরানো হয়। অভিযান পরিচালনাকারী দলের সূত্র জানিয়েছে, বিলবোর্ড-সাইনবোর্ড অপসারণকালে তাঁরা কোনো ধরনের বাধার মুখে পড়েননি। তবে বিলবোর্ডগুলো অনেক উঁচুতে থাকার কারণে অপসারণে বেশি সময় লেগেছে। বিকেলের মধ্যেই অভিযান পরিচালনাকারী দল নির্ধারিত কাজ শেষ করতে পেরেছে। অভিযান শেষে অপসারণ করা বিলবোর্ড-সাইনবোর্ডগুলো ট্রাকে করে রাজউকের মহাখালী গোডাউনে নেওয়া হয়। এগুলো সেখানে সংরক্ষণ করা হবে বলে জানিয়েছে রাজউক কর্তৃপক্ষ। রাজউকের উপনগর পরিকল্পনাবিদ মো. সিরাজুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘হাইকোর্টের নির্দেশের আলোকে অননুমোদিত আবাসন প্রকল্পের বিলবোর্ড-সাইনবোর্ড অপসারণে এ অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন এলাকায় এ অভিযান চলবে।’ মো. সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে গতকালের অভিযানে ম্যাজিস্ট্রেট রোকনউদ্দৌলা, দুজন অনুমোদনকারী কর্মকর্তা, একজন সহকারী পরিকল্পনাবিদ, সার্ভেয়ারসহ ১৩ জনের একটি দল অংশ নেয়। তাদের সঙ্গে এক প্লাটুন পুলিশ ও ২০ জন শ্রমিক ছিলেন। হাইকোর্টের রায়ে বলা হয়েছিল, অননুমোদিত আবাসন কোম্পানি ও প্রকল্পগুলো প্লট বিক্রির জন্য কোনো ধরনের বিজ্ঞাপন প্রচার করতে পারে না। রায়ে অননুমোদিত বেসরকারি আবাসন প্রকল্পের প্লট-ফ্ল্যাট বিক্রির জন্য প্রচারিত সব বিজ্ঞাপন ও এ-সংক্রান্ত সাইনবোর্ড-বিলবোর্ড অপসারণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

Image

Image



আপনার মতামত মতামত পাঠান

মতামত পাঠান

Close comment

* আপনার নাম:  
* ই-মেইল::    
টাইপিং সিলেক্ট করুন:
* মতামত:
Enter code here:
Security Code: